Google analytics কিভাবে ব্যবহার করবেন ? Google analytics ব্যবহার করার সুবিধা - Technical Trick

Breaking

Recent Posts

মঙ্গলবার, ২৫ আগস্ট, ২০২০

Google analytics কিভাবে ব্যবহার করবেন ? Google analytics ব্যবহার করার সুবিধা

Hi Friends আশা করি আপনারা সবাই ভাল আছেন আজকে আমি যে বিষয়ে আলোচনা করব সেটা হচ্ছে Google Analytics কিভাবে ব্যবহার করবেন এবং Google Analytics ব্যবহার করার সুবিধা

আপনি যদি Google Analytics সম্বন্ধে পরিচিত না হন তাহলে আমাদের এই আর্টিকেলটি ভালভাবে পড়ুন


Google analytics benefits and characteristics
গুগল এনালিটিক্স বেনিফিটস 


আগের টিউটরিয়ালে আমি বলেছিলাম :

Google Analytics কি এবং Google Analytics ব্লগারের সাথে কিভাবে Add করবেন ?

 আপনি যদি না দেখে থাকেন তাহলে লিঙ্কটাতে ক্লিক করে দেখে আসতে পারেন

Google Analytics কিভাবে ব্যবহার করবেন ? 


Friends Google Analytics গুগলের একটা ফ্রী টুল হয়ে থাকে। Google Analytics ব্যবহার করার জন্য প্রথমে আপনাকে একটা Account তৈরি করে নিতে হবে

প্রথমতঃ Account তৈরি করার জন্য আপনি যে Gmail-id দিয়ে আপনার ওয়েবসাইট ব্লগ কিংবা ইউটিউব চ্যানেল সাইনআপ করেছেন সেই Gmail -id দিয়ে আপনাকে গুগল এনালাইটিক্স একাউন্ট সাইনআপ করে নিতে হবে ।

দ্বিতীয়তঃ আপনাকে আপনার জিমেইল আইডি এবং ওয়েবসাইটের ইউআরএল টা Account তৈরি করার সময় সাবমিট করতে হবে।

তৃতীয়তঃ আপনার ওয়েবসাইটের ইউআরএল সাবমিট করার পর আপনি একটা কোড পাবেন ওই কোডটা আপনাকে ওয়েবসাইট কিংবা ব্লগে যুক্ত করতে হবে ।

অবশেষে ওই কোডটা আপনার ওয়েবসাইট কিংবা ব্লগ বা ইউটিউব চ্যানেল গুগল এনালাইটিক্স একাউন্ট এর সাথে যুক্ত হয়েছে কিনা ভেরিফাই করে নিতে হবে।

এর ফলে আপনি গুগল এনালাইটিক্স টুলটি আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ সম্বন্ধে তথ্য জানতে ব্যবহার করতে পারবেন । 

 Google Analytics এর কিছু বৈশিষ্ট্য :


Google Analytics এর পাঁচটা মূল বৈশিষ্ট্য আছে যেগুলোর সাহায্যে আপনি আপনার ওয়েবসাইট কিংবা ব্লগ এর তথ্য নিতে পারবেন সেগুলো হচ্ছে :

প্রথম বৈশিষ্ট্য হচ্ছে : ট্রাফিক বিশ্লেষণ 

এই টুলের সাহায্যে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের ট্রাফিক কোত্থেকে আসছে এবং কোন রেফারেল থেকে আসছে সবকিছু বুঝতে পারবেন এবং এটা পুরো ফ্রী টুল হয়ে থাকে । 

দ্বিতীয় বৈশিষ্ট্য হচ্ছে : কনভারজেন্স ট্রাকিং 

এই টুলের সাহায্যে আপনি আপনার ওয়েবসাইটে কতজন viewers আসছে বুঝতে পারবেন এবং আপনি যদি ওয়েবসাইটে কোন ফ্রম লাগিয়ে রাখেন তাহলে ওই ফর্মটা কতজন Fill up করছে সেটাও আপনি বুঝতে পারবেন এই টুলের সাহায্যে । 

তৃতীয় বৈশিষ্ট্য হচ্ছে : কিওয়ার্ড রেফারেল 

কিওয়ার্ড রেফারেল টুলের সাহায্যে আপনি বুঝতে পারবেন আপনার ওয়েবসাইটে কোন keyword এর মাধ্যমে ভিউয়ার্স আসছে এবং কোনটা টপ keyword যেটার মাধ্যমে viewers বেশি ভিজিট করছে 

চতুর্থ বৈশিষ্ট্য হচ্ছে থার্ড পার্টি URL 

এই টুলের সাহায্যে আপনি বুঝতে পারবেন কতটা থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইটে ট্রাফিক আসছে । অর্থাৎ কতটা অন্য সাইট থেকে আপনার ওয়েবসাইটে ট্রাফিক 
আসছে ।


পঞ্চম বৈশিষ্ট্য হচ্ছে : কাস্টম ড্যাশবোর্ড 

 এই টুলের সাহায্যে আপনি আপনার গুগল এনালাইটিক্স একাউন্ট থেকে সমস্ত ইনফরমেশন নিতে পারবেন এবং সেই ইনফরমেশন
 গুলোকে আপনি কাস্টমাইজ করতে পারবেন পরে এবং এমনকি ডাউনলোড করেও রাখতে পারবেন ।

কেন আপনার Google Analytics ব্যবহার করা উচিত ? 


প্রথম পয়েন্ট হচ্ছে : এই টুলটা সম্পূর্ণ ফ্রি এবং এটার সাহায্যে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের Traffic রিপোর্ট ডিটেলসে নিতে পারবেন ।


দ্বিতীয় পয়েন্ট হচ্ছে : আপনি অটোমেটিক ডাটা কালেকশন করতে পারবেন অর্থাৎ আপনার ওয়েবসাইটের ট্রাফিকের সম্বন্ধে আপনি অটোমেটিক ইনফরমেশন নিতে পারবেন এখানে কোন কাস্টমাইজ করা দরকার পড়ে না ।

তৃতীয় পয়েন্ট হচ্ছে : বাউন্স রেট বোঝা অর্থাৎ এই টুলের সাহায্যে আপনি বুঝতে পারবেন আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ এর অডিয়েন্স কত টাইম আপনার ওয়েবসাইটে বা ব্লগে ভিজিট করছে এবং কোন URL থেকে ভিজিট করেছে এছাড়াও আপনি বুঝতে পারবেন কোন পেজটি অডিয়েন্স read করছে এবং কোন পেজটি read করছে না এই সমস্ত তথ্য এই টুলের সাহায্যে আপনি পেতে পারবেন।

চতুর্থ পয়েন্ট হচ্ছে : অডিয়েন্স ইনফরমেশন অর্থাৎ এই টুলের সাহায্যে আপনি পেতে পারবেন আপনার অডিয়েন্স ইনফর্মেশন অর্থাৎ কোন লোকেশন থেকে আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিট করছে কোন Device ব্যাবহার করছে যেমন মোবাইল না ল্যাপটপ না ডেস্কটপ আপনি সমস্ত কিছু তথ্য পেতে পারবেন এই টুলের সাহায্যে ।

পঞ্চম পয়েন্ট হচ্ছে : অডিয়েন্স আচরণ অর্থাৎ আপনার ওয়েবসাইটের যে ভিজিটর ভিজিট করছে তাদের আচরণ কেমন তারা ওয়েবসাইটে ভিজিট করার সঙ্গে সঙ্গে বেরিয়ে যাচ্ছে কিনা এবং আরও অনেক কিছু তথ্য আপনি এই টুলের সাহায্যে নিতে পারবেন ।

ছয় নম্বর পয়েন্ট হচ্ছে : ওয়েবপেজ আন্ডারস্ট্যান্ড অর্থাৎ আপনার ওয়েবসাইটে কোন পেজটিতে ভিজিটর বেশি ভিজিট করছে কোন পেজটিতে ভিজিট করছে না কোন পেজ টি বেশি read হচ্ছে আপনি সমস্ত তথ্য এই টুলের সাহায্যে নিতে পারবেন ।

সাত নম্বর পয়েন্ট হচ্ছে : মোবাইল অডিয়েন্স অর্থাৎ আপনার ওয়েবসাইটে কোন ভিজিটর ভিজিট করছে তারা কোন ডিভাইস থেকে আসছে মোবাইল না ল্যাপটপ থেকে না ডেস্কটপ থেকে আপনি সমস্ত ইনফরমেশন নিতে পারবেন মোবাইল থেকে কতজন লোক ভিজিট করছে ।

Google Analytics ব্যবহারের সুবিধা


Friends গুগল এনালাইটিক্স ব্যবহার করার অনেক সুবিধা আছে যেগুলো আপনি আপনার ওয়েবসাইট কিংবা ব্লক বা ইউটিউব চ্যানেল জন্য নিতে পারবেন তাদের মধ্যে কিছু ভালো সুবিধা হচ্ছে :

সর্বপ্রথম সুবিধা হচ্ছে ক্লিয়ার রিপোর্ট অর্থাৎ এই Tools এর  সাহায্যে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের অডিয়েন্স সম্বন্ধে ক্লিয়ার
রিপোর্ট পেয়ে যাবেন ।

দ্বিতীয় সুবিধা হচ্ছে আপনার বেস্ট লোকেশন নির্বাচন করতে পারবেন অর্থাৎ কোন লোকেশন থেকে বেশি ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিট করছে সেই লোকেশন ট্র্যাক নির্বাচন করে ওখানে আপনি টার্গেট করতে পারবেন আপনার ওয়েবসাইট কে।

তৃতীয় সুবিধা হচ্ছে অডিয়েন্স আপনার বিজনেসের সম্বন্ধে কি সার্চ করছে অর্থাৎ আপনার ভিজিটর আপনার বিজনেস সম্বন্ধে কি জানতে চাইছে আপনি এই টুলের সাহায্যে জানতে পারবেন
 এবং এর ফলে আপনি আমার বিজনেস কে Growth করাতে পারবেন আপনার অডিয়েন্সের এর চাহিদা অনুযায়ী ।

চার নম্বর সুবিধা হচ্ছে Best পেজ আপনার ওয়েবসাইটের অর্থাৎ এই টুলের সাহায্যে আপনি বুঝতে পারবেন আপনার ওয়েবসাইটে কোন পেজটিতে বেশি অডিয়েন্স আসছে এবং কোন পোস্টটি বেশি Rank করেছে এবং ওই পেজে কোন কিওয়ার্ড রাঙ্ক করছে আপনি এই টুলের সাহায্যে বুঝতে পারবেন।

পাঁচ নম্বর সুবিধা হচ্ছে বেস্ট কন্টেন আপনার ওয়েবসাইটে অর্থাৎ এই টুলের সাহায্যে আপনি বুঝতে পারবেন আপনার কোন
কন্টেনটি বেশি অডিয়েন্স রিট করছে এবং কোনটি নয় আপনি 
 এই টুলস টি ব্যাবহার করে বুঝতে পারবেন ।

ছয় নম্বর সুবিধা হচ্ছে খারাপ পেজ আপনার ওয়েবসাইটে অর্থাৎ Google Analytics এর সাহায্যে আপনি বুঝতে পারবেন আপনার ওয়েবসাইটে কোন পেস্ট টি সব থেকে কম Rank করছে  এবং কোন পেজটিতে অডিয়েন্স রিট করছে না আপনি ভাল ভাবে খুজে বের করতে পারবেন এই টুল টির সাহায্যে।

সাত নম্বর সুবিধা হচ্ছে ইউজ Data অফ SEO অর্থাৎ এই টুলের সাহায্যে আপনি যে সমস্ত ডেটা পান সেগুলো আপনি SEO করার জন্য লাগাতে পারবেন,যেমন আপনি ট্রাফিক রিপোর্টিং ,keyboard ডাটা ,কীওয়ার্ড data এবং পেজ data  এই সমস্ত ডেটা আপনি আপনার ওয়েবসাইটের এসইও করার জন্য লাগাতে পারবেন এবং এটা খুবই আপনার জন্য উপকারী হবে যেটা আপনার বিজনেস Growth করাতে সাহায্য করবে ।


লাস্ট সুবিধা হচ্ছে অডিয়েন্স টার্গেটিং অর্থাৎ আপনি যে সমস্ত 
ডেটা গুগল এনালাইটিক্স থেকে পান ওইগুলো আপনি আপনার অডিয়েন্সের টার্গেট করে ব্যবহার করতে পারবেন যেমন আপনার অডিয়েন্সের লোকেশন ,অডিয়েন্স কোন ডিভাইস থেকে আসছে কোন রেফারেল থেকে আপনার সাইটে ভিজিট করছে ।

কোথা থেকে ভিজিট করছে এই সমস্ত তথ্য আপনি আপনার বিজনেস করার জন্য লাগাতে পারবেন এবং নেক্সট টাইম যখন আপনি কোন ক্যাম্পেইন চালাবেন আপনি ওই লোকেশানে আপনি আপনার বিজনেস Growth করার জন্য টার্গেট করতে পারবেন।


Google Analytics কোর্স 


Friends Google Analytics কোর্স দুই ধরনের হয়ে থাকে ।সেগুলো  হচ্ছে :
                     Free course 
                     Paid course 


ফ্রেন্ডস যদি আপনি Free course করতে চান তাহলে গুগল এনালাইটিক্স এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট :

                 Google Analytics Academy

গুগল এনালাইটিক্স একাডেমিতে আপনি ভিজিট করতে পারেন ।
উপরের লিংক টিতে ক্লিক করলে Google Analytics Academy এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট আপনি চলে যাবেন। 

ওখানে আপনি ফ্রিতে টিউটোরিয়াল দেখতে পারবেন এবং course শেষ এ আপনি সার্টিফিকেটও নিতে পারবেন।


এছাড়া যদি আপনি Paid কোর্স করতে চান তাহলে আপনাকে কোন ডিজিটাল মার্কেটিং ইনস্টিটিউশন এ ভিজিট করতে হবে এবং ওখান থেকে আপনি করতে পারবেন ।

Fees এবং Course সময়সীমা 


Friends যদি আপনি ফ্রি তে কোর্স করতে চান তাহলে আপনি গুগল এনালাইটিক্স একাডেমী অফিসিয়াল ওয়েবসাইট এ যেতে পারেন এবং ওখানে আপনি আপনার টাইম অনুযায়ী অনলাইন এ কোর্স টি করতে পারবেন আপনি যতটা টাইম ইন্টারনেটে দিবেন অনলাইন কোর্স করার জন্য ততটা সময় লাগবে আপনার কোর্সটি কমপ্লিট হতে ।


এছাড়া যদি আপনি Paid কোর্স করতে চান তাহলে আপনার কোন ডিজিটাল মার্কেটিং ইনস্টিটিউশন ভিজিট করতে হবে এবং ওখানে একটা নির্দিষ্ট টাইম দেওয়া থাকবে ওই টাইম অনুযায়ী আপনাকে Course টা করে নিতে হবে । হতে পারে টাইম তিন মাস থেকে ছয় মাস লাগতে পারে কোর্সটি কমপ্লিট হতে এবং ওই ইনস্টিটিউশন এ  এডমিশন একাডেমিতে কথা বলে আপনার কোর্স ফিস জেনে নিতে পারবেন.

Friends এটাই ছিল আমার আজকে Google Analytics সম্বন্ধে টিউটরিয়াল ।

আপনি যদি একজন Beginner হন তাহলে আশা করি এই কনটেন্ট  টি পড়ে আপনি বুঝতে পেরেছেন এবং আপনার জন্য এই tutorial  খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়েছে ।

এছাড়া আপনার মনে যদি কোন কোশ্চেন জেগে থাকে তাহলে আপনি নিচে কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাতে পারেন ।

এছাড়াও আপনি জানাতে পারেন কোন বিষয়ে এর উপর আমি    কনটেন্ট লিখবো এবং কোন টপিক কভার করবো ।


টিউটোরিয়ালটি ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই আপনি আপনার বন্ধু বান্ধবের সাথে শেয়ার করবেন যাতে ওরা Google Analytics সম্বন্ধে কমপ্লিট ইনফর্মেশন পেতে পারে।









কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Please do not enter any spam link in the comment box.